You are currently viewing Redmi ব্র্যান্ডের সেরা মোবাইল! Redmi মোবাইলের দাম!
Redmi ব্র্যান্ডের সেরা মোবাইল! Redmi মোবাইলের দাম!

Redmi ব্র্যান্ডের সেরা মোবাইল! Redmi মোবাইলের দাম!

আজকের বিষয় : Redmi ব্র্যান্ডের সেরা মোবাইল! Redmi মোবাইলের দাম!

আপনারা অনেকে আছেন যারা রেডমি ফোন ব্যবহার করেন অথবা রেডমি ফোন ভবিষ্যতে ব্যবহার করতে ইচ্ছুক তাদের জন্য আজকের এই পোস্ট। শাওমি ব্যান্ডের একটি পণ্য হচ্ছে রেডমি। রেডমি সাধারণত একটি ব্র্যান্ড। রেডমি ফোনে গেমিং ফোন এবং এই ফোন যারা ব্যবহার করেন তারা সেই সম্পর্কে বিস্তারিতভাবে জানেন এবং বুঝেন। তাই আপনাদের নতুন করে বলার আর কিছুই নেই আর যারা নতুন ফোন কিনতে চান তারা আজকের রেডমি সেরা মোবাইল redmi মোবাইল এর দাম সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে পারবেন। কয়েকটি টপ কোম্পানির মধ্যে স্বামী কোম্পানি একটি। স্বামী ব্যান্ডের মোবাইল যেমন স্মার্ট ঠিক তেমনি স্লিম। মোবাইল গুলা হচ্ছে অনেক ভালো। শাওমির বিভিন্ন ধরনের শাড়ি রয়েছে, তার মধ্যে উল্লেখযোগ্য হচ্ছে রেডমি, poco ছাড়া আরও বিভিন্ন। শাওমি ব্যান্ডের রেডমি কে সিরিজের ফোন গুলা সবই প্রায় ডিসপ্লে ফিঙ্গার। আপনাদের যাদের বাজেট অনেক বেশি তারা এই ফোনটি কিনতে পারেন।

 

#রেডমি নতুন মোবাইল!
#রেডমি ফোনের দাম কেমন!
#redmi 9 মোবাইলের দাম!
#redmi note 11 pro 5g ফোন কেমন?
#redmi note 11 s 5G ফোন কেমন?
#redmi note 11 ফোন কেমন?

আজকের পোষ্টের উপরোক্ত বিষয় সম্পর্কে বিস্তারিতভাবে আলোচনা করা হবে, redmi নতুন মোবাইল গুলো কি কি রেডমি ফোনের দাম কেমন রেডমি ৪/৬৪ মোবাইলের দাম কেমন রেডমি ৯ মোবাইল রিভিউ রেডমি নোট ইলেভেন ফাইভ জি ফোন কেমন রেডমি নোট 11 স্পেস কেমন সব কিছু বিস্তারিতভাবে নিচে আলোচনা করা হলো:

#রেডমি নতুন মোবাইল!

শাওমি ব্র্যান্ডের একটি পণ্য হচ্ছে রেডমি। রেডমি কোম্পানি প্রতিনিয়ত বিভিন্ন ধরনের ফোনকে আপডেট করছে। ফোনে নতুন কিছু এড করছে ফোনে স্মার্ট করছে। আগের থেকে হাজার গুন ভালোভাবে ফোন তৈরি করছে। বর্তমানে সেই ফোনগুলো মার্কেটে অনেক কম দামে সেল দিচ্ছে তারা। যারা রেডমি পছন্দ করেন তারা রেডমি ব্যান্ডের বিভিন্ন ধরনের নতুন মোবাইল redmi series, poco series এর মোবাইল গুলো কিনতে পারেন। রেডমি শারিজ এবং পোকো সাইজের ফোন গুলো ক্যামেরা যেমন ঠিক প্রসেসর তার থেকে অনেক গুণ বেশি ভালো। একটা কথা সবসময় মনে রাখতে হবে রেডমি মানেই গেমিং প্রসেসর। আর এমন কোন প্রসেসর নাই যেখানে গেমিং প্রসেসর এর সাথে পারে। রেডমি ব্যান্ডের কয়েকটি নতুন মোবাইল হল redmi note 11 Pro plus 5G, redmi note 11 s 5G, redmi note 11. আপনাদের যাদের বাজেট একটু বেশি প্রায় ২৫ হাজার টাকার উপরে তারা এই ধরনের ফোন গুলো কিনতে পারেন। ২৫ হাজার টাকা দিয়ে যাচ্ছেন রেডমি ব্যান্ডের সেরা মোবাইলগুলি। তাছাড়া আপনি আপনার পছন্দ অনুযায়ী রেডমি অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে ফোন পছন্দ করে কিনতে পারেন।

#রেডমি ফোনের দাম কেমন!

রেডমি ফোনের দাম কেমন? তাই সবাই এই প্রশ্নটি করে থাকে। একজন নতুন ক্রে ইনতা যখন ফোন কিনতে যায় তখন তার মাথায় সর্বপ্রথম যে চিন্তা সেটি হচ্ছে রেডমি ফোনের দাম কেমন। কত টাকা হলে আমি একটি ভালো রেডমি ফোন কিনতে পারব। অবশ্যই মনে রাখতে হবে ফোন ফোনের দাম আপনার বাজেটের ওপর নির্ভর করে। তাদের কোম্পানিতে দেওয়া প্রাইজ অনুযায়ী তারা ফোন সেল দেয়। এখন আপনার যদি ১৪ হাজার টাকার মতো বাজেট হয় তাহলে আপনি রেডমি ব্র্যান্ডের বিভিন্ন ধরনের ফোন পাবেন। ১৪ হাজার টাকা বাজেটের মধ্যে রেডমি ৯ রেডমি ৯ প্রাইম রেডমি ৯ পাওয়ার, ফোন গুলা পাবেন। তাছাড়া আপনার বাজেট যদি আরো বেশি হয় তাহলে আপনি রেডমি টেন রেডমি এলিভেন ফোন গুলা কিনতে পারেন। বাজেট এর উপর নির্ভর করে আপনার ফোন বিবেচনা করা উচিত। তাই আশা করি বুঝতে পেরেছেন এই প্রশ্নটি আর মাথায় আসবে না যে রেডমি ফোনের দাম কেমন।

#redmi 9 ফোনের দাম!

রেডমি ব্যান্ডের আমার কাছে একটি পছন্দনীয় ফোন হলো redmi 9 ফোন। Redmi 9 ফোনে ব্যবহার করা হয়েছে ১৩ মেগাপিক্সেলের মেইন ক্যামেরা এবং ১৬ মেগা বিজ্ঞানের ফন্ট ক্যামেরা। ৫০২০ এম্পিয়ার এর ব্যাটারি। ফোনটি আপনি ৪ ৬৪ এবং 3 32 জিবি গ্লোবাল এবং চাইনিজ ভ্যারিয়েন্ট পেয়ে যাবেন। Redmi 9 ফোন মানে একটি অসাধারণ ফোন এই ফোনটি আপনি তিন ধরনের কালার বাজারে পাবেন। রেডমি নাইন ৩ ৩২ ফোনটি আপনি ১৩৯৯৯ টাকায় অফিশিয়ালি পেয়ে যাবেন। আপনার যদি বাজেট কম হয় তাহলে আপনি এই ফোনটি কিনতে পারেন। এই বাজেটের সাথে ১ হাজার টাকা যোগ করলে ১৪ হাজার ৯৯৯ টাকায় পেয়ে যাবেন ৪ ৬৪ redmi 9 ফোনটি। দুর্দান্ত একটি ফোন রেডমি নাইন ফোন। যাদের বাজেট ১৪ হাজার টাকা তারা রেডমি নাইনফোন টি ব্যবহার করতে পারেন। আশা করি ফোনটি অনেক ভালো হবে। কারণ ফোনটা আমি নিজেও ব্যবহার করি!

#redmi note 11 pro 5g ফোনটি কেমন!
আপনারা যারা হাই বাজেটের মধ্যে ফোন কিনতে চাচ্ছেন তাদের জন্য একটি দুর্দান্ত ফোন হল redmi note 11 pro 5g ফোন। এই ফোনটির প্রাইজ হল ২৫ হাজার ৫০০ টাকা এবং ত্রিশ হাজার টাকা। এই ফোনটিতে আপনি যা যা পাচ্ছেন
•120 watt hypercharge
108 megapixel main camera.
120 hz full amulated display.
Dual speaker
MediaTek dimensions 5G.
6 nanometer ultra performance processor.

6/128 or 8/128 internal ram and ROM. তাহলে নিশ্চয়ই বুঝতে পারছেন এই ফোনটি কেমন হবে। 6 জিবি রেম এবং ১২৮ জিবি রম এ ফোনটি আপনি পেয়ে যাচ্ছে মাত্র ২৫ হাজার ৫০০ টাকা দিয়ে। ৮ জিবি রেম এবং ১২৮ জিবি রমে রেডমি নোট 11 5g pro ফোনটি আপনি পেয়ে যাচ্ছেন মাত্র 30 হাজার টাকা দিয়ে। আপনাদের যারা রেডমি ব্যান্ডের হাই কোয়ালিটি ফুল ফোন প্রয়োজন তারা এই ফোনটি কিনতে পারেন। ফোনটিতে গেমিং প্রসেসর ব্যবহার করা হয়েছে যারা গেমে স্টিমিং করতে চান তারা এই ফোন কিনতে পারেন।

#redmi note 11 s 5g ফোনের দাম!
রেডমি ব্যান্ডের আরও একটি ফোন হল রেডমি নোট ইলেভেন এস ৫জি। অনেকেই ফোন সম্পর্কে বিস্তারিতভাবে জানেন তাদেরকে নতুনভাবে বলার প্রয়োজন নেই। আর যারা নতুনভাবে ফোন কিনতে চাচ্ছেন তারা এই ফোন সম্পর্কে একটু জেনে নেয়াই ভালো এ ফোনে আপনি যা যা পাচ্ছেন
•all round Easter with 5G.
MediaTek density 810 with 5G.
33 ward Pro charging support.
50 megapixel triple camera.

And Snapdragon gaming processor. এ ফোনটি আপনি সম্পূর্ণ ফাইভ-জি তে পেয়ে যাচ্ছেন। এক কথায় redmi ব্র্যান্ডের এই ফোনটি হচ্ছে অসাম। ক্যামেরার মেগাপিক্সেল ও যেমন ঠিক তেমন গেমিং প্রসেসর। যার ফ্রী ফায়ার অথবা পাবজি লাভাররা এই ফোনটি অবশ্যই কিনতে পারেন। শাওমি ব্যান্ডের অফিসিয়াল ওয়েবসাইট অনুযায়ী এই ফন্ট এর কাজ হল ২৫ হাজার টাকা। পঁচিশ হাজার টাকা দিয়ে আপনি পেয়ে যাচ্ছেন redmi note 11s 5g ফোনটি। তাহলে দেরি না করে কিনে ফেলুন এই ফোনটি।

#redmi note 11 ফোনটি কেমন।
অনেকে নতুন ফোন কিনতে চাচ্ছেন। অনেকে ভেবেছেন রেডমি ব্যান্ডের ফোন কিনবো তাহলে আপনার জন্য রেডমি নোট 11 ফোনটি একটি অসম্ভব ফোন হতে পারে। Redmi note 11 ফোনের প্রাইস ঠিক কতটা বেশি নয় যতটা আপনারা ভাবছেন। Redmi note 11 ফোনটিতে ব্যবহার করা হয়েছে
•90 gigahertz amulated Pioneer and display.
Processor Snapdragon 680 ®
33 watt fast charging

48 megapixel camera অবশ্যই বুঝতে পারছেন কম বাজেটের মধ্যে ফোন একটি কেমন হবে। এই ফোনটি আপনি বাংলাদেশের তিন ভেরিয়েন্টই পেয়ে যাচ্ছেন এই ফোনটির প্রাইস হল ৪জিবি রেম এবং ৬৪ জিবি রম এ ২০ হাজার ৫৯৯ টাকা। গ্লোবাল এবং চাইনিজ দুটি ভ্যারেয়ন্ট পেয়ে যাচ্ছেন। ৬ জিবি রেম এবং ১২৮ জিবি রম এই ফোনটি পাচ্ছেন মাত্র ২২ হাজার ৪৯৯ টাকায়। এটা দুইটি ভ্যারিয়েন্ট পাচ্ছেন। এবং ৮ জিবি রেম এবং ১২৮ জিবি রং এর ফোনটি পাচ্ছেন ২৩৯৯৯ টাকা। ২০ হাজার ৫০০ টাকা মধ্যে পাচ্ছেন 4gb এবং 23 হাজার টাকার মধ্যে পাচ্ছেন ৮ জিবি। অতএব আপনার পক্ষে ৩ হাজার টাকা বেশি দিয়ে 4gb রেম নেওয়া অনেক ভালো হবে।

উপরোক্ত কয়েকটি ফোন সম্পর্কে বিস্তারিতভাবে আলোচনা করা হয়েছে। আশা করি আপনাদের পছন্দমত  বিস্তারিত ভাবে আলোচনা করতে পেরেছি, ফোনগুলোর দাম সব সময় একই নাও থাকতে পারে তাই অবশ্যই ফোন কেনার আগে যে কোন ব্র্যান্ডের অফিসিয়াল ওয়েবসাইট থেকে জানতে জেনে নিবেন। এবং ফোন কিনার আগে অবশ্যই অফিশিয়াল ফোন কিনবেন। এরকম আরো বিভিন্ন ধরনের টেক রিলেটেড , ফ্রিল্যান্সিং এবং বিজনেস আইডিয়া সম্পর্কে জানতে আমাদের ওয়েবসাইটে ভিজিট করুন।

Leave a Reply