You are currently viewing ব্লগিং করে আয় করুন সহজেই
ব্লগিং কি

ব্লগিং করে আয় করুন সহজেই

ব্লগিং কি ?

ব্লগিং হলো মূলত অনলাইন একটি পত্রিকা বা ব্যক্তি লিপি। ব্লগ শব্দটি হচ্ছে ওয়েব ব্লগ এর সংক্ষিপ্ত রূপ। যিনি ওয়েব ব্লগে পোস্ট করেন তিনি হচ্ছেন ব্লগার। ব্লগাররা প্রতিনিয়ত তাদের ওয়েব লগে পোস্ট করেন এবং পর্যাপ্ত পরিমাণ ভিজিটরের মাধ্যমে টাকা ইনকাম করে থাকেন। এছাড়া বর্তমানে ব্লগ একটি ফ্রিল্যান্স বা সাংবাদিকতার মাধ্যম হয়ে উঠেছে। ব্লগিং করে অথবা ব্লগ লিখে প্রতি মাসে লাখ লাখ টাকা ইনকাম করছেন মানুষ। বেশিরভাগ ব্লগেই নির্দিষ্ট একটি বিষয়ের ওপর বিশ্লেষণ করে লিখা হয়। সাম্প্রতিক ঘটনাসমূহ নিয়ে এক বা একাধিক ব্লগাররা তাদের ওয়েবসাইটে বিভিন্ন ধরনের ব্লগ লিখে পোস্ট করে এবং সে ব্লগের মাধ্যমে নির্দিষ্ট পরিমাণ টাকা ইনকাম করে। পাঠকদের মন্তব্য করার একটি সুযোগ থাকে একটি ব্লগ সাইটে। আসুন আজকে ব্লগ সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করা যাক!

 

  1. ব্লগ কি?
  2. ব্লগিং এর কাজ কি?
  3. ব্লগ তৈরির নিয়ম।
  4. ফ্রি ব্লগিং থেকে টাকা ইনকাম!
  5. ব্লগিং কিভাবে শিখব?
  6. ব্লগসাইট থেকে এডসেন্সের মাধ্যমে টাকা ইনকাম!
  7. এফিলিয়েট মার্কেটিং এর মাধ্যমে টাকা ইনকাম!
  8. ডিজিটাল পণ্য বিক্রয়ের মাধ্যমে টাকা ইনকাম!

 

আমাদের আজকের ব্লগে উপরোক্ত বিষয় সম্পর্কে বিস্তারিতভাবে আলোচনা করা হবে। আশা করি ব্লগিং কি, ব্লগিং এর কাজ কি, ব্লক তৈরির নিয়ম, ফ্রি ব্লগ থেকে টাকা ইনকাম ব্লক সাইট অ্যাড থানসের মাধ্যমে টাকা ইনকাম, এফিলিয়েট মার্কেটিং এর মাধ্যমে টাকা ইনকাম, ডিজিটাল পণ্যের মাধ্যমে টাকা ইনকাম , পেড কোর্স থেকে টাকা ইনকাম, সব বিষয় সম্পর্কে বিস্তারিতভাবে বুঝতে পারবেন।

 

  1. ব্লগ কি?

 

মানুষের মনে সর্বপ্রথম যে প্রশ্নটি আসে সেটি হচ্ছে ব্লক কি। ব্লক হচ্ছে কোন নির্দিষ্ট বিষয়ের উপর লিখিত কোন কনটেন্ট বা আর্টিকেল। কোন বিষয়ের উপর নির্দিষ্টভাবে লিখে সেটা ওয়েবসাইটে প্রবেশ করিয়ে টাকা ইনকাম করা যায়। প্রায় ব্লোগী মূলত লেখাভিত্তিক হয়ে থাকে। তাছাড়া বিভিন্ন ধরনের ব্লক রয়েছে যেমন শিল্প বা আর্ট ব্লগ, ছবি বা ফটো ব্লগ, ভিডিও ব্লগ, অডিও ব্লগ, এবং রয়েছে আরও একটি ধরনের ব্লগিং সেটা হচ্ছে মাইক্রো ব্লগিং। ব্লক পোস্টগুলো মূলত বিভিন্ন বিষয় সম্পর্কে বিস্তারিতভাবে আলোচনা করা হয়। ২০১৭ সালের জুন মাসের ব্লগ ইঞ্জিন টেকনোরাটরী  প্রায় ২২ মিলিয়নের বেশি ব্লগিং সাইটের খোঁজ পেয়েছে। ওয়েব ব্লক শব্দটি ১৭ ডিসেম্বর ১৯৯৭ সালে জন বার্গার নামের একজন ব্যক্তির থেকে উদ্ভাবিত হয়। ব্লক সাইট মূলত এক ধরনের ওয়েবসাইট যেখানে বিভিন্ন ধরনের পোস্ট লেখা হয়।

 

  1. ব্লগিং এর কাজ কি?

 

ব্লক সাইটে বিভিন্ন ধরনের ব্লগ লেখার জন্য যে সম্পাদক অথবা লেখক থাকে তাকে ব্লগার বলা হয়। আরে ব্লগারের কাজগুলো ব্লগিং। যিনি ব্লগিং করেন তিনি হচ্ছেন একজন লেখক। ব্লগার এর কাজ মূলত নির্দিষ্ট কোন বিষয়ের উপর কোন একটি কনটেন্ট বা আর্টিকেল লিখে তা কোন ওয়েবসাইটের প্রবেশ করানো। বর্তমানে ব্লগিং এর কাজ করে মানুষ প্রচুর পরিমাণে টাকা ইনকাম করছে। বিভিন্ন বিষয় সম্পর্কে ব্লগিং করে একজন ভালো মানের কন্টেন্ট রাইটার প্রচুর পরিমাণে টাকা ইনকাম করছে। একজন ব্লগার google এডসেন্সের মাধ্যমে প্রচুর পরিমাণে টাকা ইনকাম করছে ব্লগিং সাইট থেকে। ব্লগিং সাইটের বিভিন্ন ধরনের সিএসএম রয়েছে তার মধ্যে ফ্রি-সএসএম হলো ব্লগার ডট কম। ব্লগিং মূলত ফ্রিল্যান্সিং সেক্টরের একটি বিভাগ।

 

  1. ব্লক তৈরি করার নিয়ম?

 

একটি ব্লক সাইট তৈরি করার জন্য বিভিন্ন ধরনের সিএসএম রয়েছে। তার মধ্যে ওয়ার্ডপ্রেস এবং broger হল সবথেকে ভালো সিএসএম। আপনি যদি ওয়ার পেজ সম্পর্কে সামান্য পরিমাণ জ্ঞান রাখেন তাহলে ব্লগিং করতে পারবেন। ব্লক তৈরী করতে হলে মূলত আপনাকে ডমেইন এবং হোস্টিং কিনতে হবে। আপনি পছন্দ মত ফ্রি অথবা প্রিমিয়াম থিম ব্যবহার করে আপনি ব্লক সাইট তৈরি করতে পারেন। ব্লক সাইট তৈরি করার সময় অবশ্যই যে বিষয়টি খেয়াল রাখতে হবে সেই বিষয়টি হচ্ছে পোস্ট ইনডেক্সিং। পোস্ট ইনডেক্সিং ব্যাপারটি হচ্ছে কত সময়ের মধ্যে google এর মধ্যে পোস্ট যাচ্ছে বা প্রবেশ করছে। প্রিমিয়াম থিম রমেন হোস্টিং কিনতে আপনার প্রচুর পরিমাণে টাকা খরচ হবে। আপনি একজন যদি নতুন ব্লগার বা নতুন ব্লগিং শুরু করতে চান তাহলে আপনার বিভিন্ন ধরনের ফ্রি ব্লগ রয়েছে যেগুলো সম্পর্কে বিস্তারিতভাবে নিচে আলোচনা করা হবে।

 

  1. ফ্রী ব্লগ তৈরি করে টাকা ইনকাম!

 

বর্তমানে টাকা ইনকাম এর আরেকটি মাধ্যম হচ্ছে ব্লগিং। আপনি যদি ব্লগিং শিখতে চান এবং ব্লগিং করে টাকা ইনকাম করতে চান তাহলে আপনার জন্য রয়েছে ফ্রী ব্লক সাইট। Blogger.কম থেকে আপনি ফ্রি ওয়েবসাইট বানিয়ে এডসেন্স  পেয়ে তারপর টাকা ইনকাম করতে পারেন। গুগলে গিয়ে blogger.কম লিখলে আপনার একটি অপশন আসবে তারপরে আপনি আপনার ইচ্ছেমতো একটি ব্লগ সাইট তৈরি করে বিভিন্ন ধরনের ফ্রি থিম ব্যবহার করে ওয়েবসাইট তৈরি করবেন তারপর ওয়েবসাইটে নিয়মিত পোস্ট পাবলিশ করতে থাকবেন। নির্দিষ্ট সময় পর আপনার ওয়েবসাইটে ভিজিটর আসলে আপনি গুগল এডসেন্স এর জন্য এপ্লাই করতে পারবেন। তারপর গুগল এডসেন্স অ্যাপ্রুভাল পেলে আপনার ইনকাম শুরু। গুগল এডসেন্স অ্যাপ পেতে হলে আপনাকে সর্বনিম্ন 30 থেকে 50 টা পোষ্ট থাকা লাগবে। ৩০ থেকে ৫০ টা পোস্ট থাকলে আপনি গুগল এডসেন্স পেতে পারেন। ফি ব্লক তৈরি করার জন্য আপনার কোন টাকা দিতে হবে না। তাই আপনার এখানে কোন ভয় থাকছে না।

 

  1. ব্লগ সাইট থেকে এডসেন্সের মাধ্যমে টাকা ইনকাম!

 

আপনার যদি একটি নির্দিষ্ট ওয়েবসাইট থাকে তাহলে আপনি প্রতিনিয়ত আপনার নির্দিষ্ট ওয়েবসাইটে পোস্ট করতে থাকেন। নির্দিষ্ট সময় পর আপনার ওয়েবসাইট এডসেন্স এপ্রুভাল হলে আপনি টাকা ইনকাম করতে শুরু করে দিবেন। আপনার এডসেন্সে সর্বনিম্ন ১০ ডলার আসলে আপনি একটি পিন পাবেন। তিনটি মূলত আপনার ঠিকানা সিওর হওয়ার জন্য পাঠানো হয়। ফিন ভেরিফাইড হওয়ার পর আপনার এডসেন্সে যদি ১০০ ডলার হয় তাহলে আপনি টাকা পেমেন্ট নিতে পারেন। ব্লক সাইট থেকে এডসেন্সের মাধ্যমে টাকা ইনকামের সব থেকে গুরুত্বপূর্ণ যে বিষয় সেটি হচ্ছে ভিজিটর। আপনার ওয়েবসাইটে যদি কোন ভিজিটর না থাকে তাহলে আপনি টাকা ইনকাম করতে পারবেন না। তাই আপনাকে এসিও ফ্রেন্ডলি অথবা ইউজার ফ্রেন্ডলি ইউনিক কনটেন্ট লিখতে হবে। আপনার ওয়েবসাইটে 200 এর বেশি কনটেন্ট থাকলে আপনি খুব সহজে ভিজিটর আনতে পারেন। ভিজিটর থেকে টাকা ইনকাম এটাই হচ্ছে মূলত এডসেন্সের মাধ্যমে টাকা ইনকাম।

 

  1. অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং এর মাধ্যমে টাকা ইনকাম

 

ব্লক সাইটে টাকা ইনকামের আরো একটি মাধ্যম হলো এফিলিয়েট মার্কেটিং। আপনার ওয়েবসাইটটি যদি পর্যাপ্ত পরিমাণ ভিজিটর আসে আপনি প্রধানত এডসেন্সের মাধ্যমে টাকা পাবেন। এডসেন্স ছাড়া টাকা ইনকামের আরো একটি পদ্ধতি হচ্ছে এফিলিয়েট মার্কেটিং। বিভিন্ন কোম্পানি যেমন amazon, daraz ছাড়া বিভিন্ন ই-কমার্স ওয়েবসাইট রয়েছে। তাদের একটি এফিলেট সিস্টেম রয়েছে যদি আপনি তাদের পণ্য আপনার ওয়েবসাইটের মাধ্যমে বিক্রি করতে পারেন তাহলে আপনাকে নির্দিষ্ট পরিমাণ কমিশন দেওয়া হবে। এফিলিয়েড সিস্টেম মূলত আপনার একাউন্টের সাথে যুক্ত থাকে। আপনার মাধ্যমে কোন পণ্য বিক্রি হলে আপনি তার কিছু কমিশন পাবেন এটাই মূলত এফিলেট মার্কেটিং। অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং গুগল এডসেন্স এর মাধ্যমে আপনি আপনার ব্লক সাইট থেকে টাকা ইনকাম করতে পারেন।

 

  1. ডিজিটাল পণ্য বিক্রি করে টাকা ইনকাম।

 

ব্লক সাইটে টাকা ইনকামের আরো একটি এক্সট্রা বিষয় হচ্ছে ডিজিটাল বর্ণ বিক্রয়। ডিজিটাল বর্ণ বিক্রয়ের মাধ্যমে আপনি টাকা ইনকাম করতে পারেন আপনার ওয়েবসাইট থেকে। আপনার ওয়েবসাইটে যদি অর্গানিক ভিজিটর আসে তাহলে আপনি সিপিসি এবং ফেসবুক থেকে যেমন টাকা ইনকাম করতে পারেন ঠিক তেমনি ডিজিটাল পণ্য বিক্রয়ের মাধ্যমে টাকা ইনকাম করতে পারেন। তাছাড়া আপনি আপনার নিজস্ব পণ্য আপনার ওয়েবসাইটে বিক্রি করতে পারেন। আপনি বিভিন্ন ধরনের ডিজিটাল পণ্য আপনার ওয়েবসাইটে বিক্রির প্রচার করে আপনি টাকা ইনকাম করতে পারেন এবং নির্দিষ্ট পরিমাণ কমিশন নিতে পারেন। এটাই হচ্ছে ডিজিটাল পণ্য বিক্রয়ের মাধ্যমে ব্লগ থেকে টাকা ইনকাম।

 

আশা করি আজকের ব্লগের মাধ্যমে ওয়েবসাইট থেকে টাকা ইনকাম ব্লগিং করে টাকা ইনকাম সম্পর্কে বিস্তারিতভাবে বুঝতে পেরেছেন। এমন আরো বিভিন্ন ধরনের পোস্ট পেতে আমাদের ওয়েবসাইটে ভিজিট করতে থাকুন।

 

আরো তথ্য জানতে TimetoEdu এর সাথেই থাকুন।

Leave a Reply